মেনু নির্বাচন করুন

হাসাদাহ মডেল ফাজিল মাদ্রাসা

সক্ষিপ্ত বর্ণনা:  হাসাদাহ ফাজিল মাদরাসা চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলার ৩নং বাঁকা ইউনিয়নের অমত্মর্গত হাসাদাহ বাজারে অবস্থিত। মাদরাসাটি ১৯৭২ সালে স্থাপিত হয়। বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ০১-০১-১৯৮৬ সালে দাখিল, ০১-০১-১৯৯৭ সালে আলিম এবং     ০১-০৫-২০০৪ সালে ফাজিল শ্রেণী এমপিওভুক্ত হয়। বর্তমানে মাদরাসাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সেকেন্ডারী এডুকেশন সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় ৩৫টি মডেল মাদরাসা অন্যতম একটি।

 

ইতিহাস: হাসাদাহ ফাজিল মাদরাসা চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলার ৩নং বাঁকা ইউনিয়নের অমত্মর্গত হাসাদাহ বাজারে অবস্থিত এই মাদরাসাটি প্রথমে একটি হাফেজী মাদরাসা হিসাবে স্থাপিত হয়। এলাকার আপামর জনগণের উদ্যোগে স্বল্প পরিসরে এই মাদরাসার চালু হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় জনগনের ঐকামিত্মক স্বদিচ্ছায় আধুনিক মাদরাসা শিÿার প্রত্যয় নিয়ে মাদরাসাটিতে আলীয়া মাদরাসার ভাবধারায় ফিরে আসে। এমতাবস্থায় মাদরাসাটি বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ০১-০১-১৯৮৬ সালে দাখিল, ০১-০১-১৯৯৭ সালে আলিম এবং ০১-০৫-২০০৪ সালে ফাজিল শ্রেণী এমপিওভুক্ত হয়। বর্তমানে মাদরাসাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সেকেন্ডারী এডুকেশন সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের আওতায় ৩৫টি মডেল মাদরাসা অন্যতম একটি। মাদরাসাটিতে একটি এতিমখানা (লিলস্নাহ বোর্ডিং) আছে, যেখানে প্রায় ৫০ জন এতিম, দুঃস্থ ও মেধাবীদেরকে বিনামূল্যে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা সম্বলিত। স্থানীয় দানশীল এবং সরকারীভাবে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এতিমখানার ব্যয়ভার যোগান দেয়া হয়। বর্তমানে সুপরিসর ভবনে প্রায় ৩ একর জায়গা নিয়ে মাদরাসার অবস্থান। মাদরাসাটিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন সেকেন্ডারী এডুকেশন সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় একটি অত্যাধুনিক বহুতল ভবন, আইসিটি ল্যাব, বিজ্ঞানাগার, পাঠাগার সম্মৃদ্ধ এই মাদরাসাতে ২৬জন শিÿক/শিক্ষকাসহ সর্বমোট ৩৪ জন কর্মকর্তা/কর্মচারী নিয়োজিত আছেন। অদূর ভবিষ্যতে মাদরাসাটিতে কামিল (অনার্স কোর্স) চালুর সম্ভাবনা রয়েছে। এলাকাবাসী ও শিক্ষক/শিক্ষকাবৃন্দসহ সকলের ঐকামিত্মক প্রচেষ্টায় মাদরাসাটি অত্র অঞ্চলের শ্রেষ্ঠ ইসলামী বিদ্যাপীঠ হিসাবে স্থানলাভ করেছে।


Share with :

Facebook Twitter